বেসরকারী খাত উন্নয়নে সরকার সর্বাত্মক সহযোগিতা দেবেঃ জিপিএইচ এর কুমিরাস্থ কারখানা এলাকায় বৃক্ষ রোপন কর্মসূচী উদ্বোধনে জেলা প্রশাসক

জিপিএইচ এর কুমিরাস্থ নতুন প্রকল্প এলাকায় বৃক্ষ রোপন কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন, সীতাকুন্ড উপজেলা নির্বাহী অফিসার  নাজমুল ইসলাম ভূইঁয়া, জিপিএইচ ইস্পাতের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম এবং অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ  আলমাস শিমুল।

“প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার চট্টগ্রামের মিরসরাই ও আনোয়ারায় বিশেষায়িত শিল্পাঞ্চাল স্থাপন, দারিদ্রসূচক ৪৯%থেকে কমিয়ে ২৫% আনা সহ অর্থনৈতিক উন্নয়ন কর্মসূচীতে বেসরকারী খাত কে অগ্রাধিকার দিচ্ছে। এক্ষেত্রে জিপিএইচ ইস্পাত ও তাদের সহযোগী প্রতিষ্ঠানসমূহ অগ্রগন্য ভূমিকা পালন করছে। আমরা আশা করছি তাদের পরিকল্পিত নতুন প্ল্যান্ট স্থাপিত হলে বিপুল পরিমাণ জনসম্পদের কর্মসংস্থান, আমদানী বিকল্প ইস্পাত সামগ্রী উৎপাদন ও রপ্তানী বৃদ্ধি পাবে। অর্থনৈতিক উন্নয়নের বৃহত্তর স্বার্থে প্রশাসন বা সরকার এক্ষেত্রে সর্বাত্মক সহযোগিতা দেবে”। ১২ মে  চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক জনাব মেজবাহ উদ্দিন  সীতাকুন্ড মসজিদ্দাস্থ জিপিএইচ বর্তমান কারখানা ও নতুন প্ল্যান্টের এলাকা পরিদর্শন কালে এই আশ্বাস প্রদান করেন। পরে তিনি নতুন প্রজেক্ট এলাকায় বৃক্ষরোপন কর্মসূচী উদ্বোধন করেন ও নতুন প্রজন্মের হাতে বৃক্ষরোপনের জন্য কিছু চারা হস্তান্তর করেন। এই সময় তার সাথে সীতাকুন্ড উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব নাজমুল ইসলাম ভূইঁয়া উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় জিপিএইচ ইস্পাতের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম জেলা প্রশাসককে স্বাগত জানিয়ে বলেন, “জিপিএইচ ইস্পাত অষ্ট্রিয়ার প্রাইমেটাল টেকনলজিস জিএমবিএইচ এর সাথে  নতুন প্ল্যান্ট স্থাপনের চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। এই আধুনিক প্রযুক্তি স্থাপনের ফলে এই প্ল্যান্টে ৫০% বিদ্যুৎ ও গ্যাস সাশ্রয় হবে । অপরদিকে প্রতিবছরে ৮৪০,০০০ মেট্রিক টন বিলেট, ৬৪০,০০০ মেট্রিক টন রিবার্স এ্যান্ড সেকশনস তৈরি হবে। ফলে গ্রাহকরা অপেক্ষাকৃত স্বল্প মূল্যে উন্নতমানের ইস্পাত সামগ্রী ক্রয় করতে সক্ষম হবে। প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে ১০ হাজার মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে। সরকারি কোষাগারে বাৎসরিক প্রায় ৩০০ কোটি টাকা জমা পড়বে। তিনি শিল্পাঞ্চলে পানির সমস্যা সমাধানের জন্য পাহাড়ী এলাকায় কৃত্রিম হ্রদ স্থাপনের সুপারিশ করেন। অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ  আলমাস শিমুল বলেন, ”আমরা একটি আমদানী বিকল্প পরিবেশ বান্ধব শিল্পাঞ্চল গড়ে তুলতে যাচ্ছি”। মিডিয়া এডভাইজার ওসমান গনি চৌধুরী অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন। সর্বশেষে জিপিএইচ ইস্পাতের নতুন প্ল্যান্টের উপর একটি তথ্য-উপাত্তমূলক মাল্টিমিডিয়া প্রেজেন্টেশন দেন জি.এম, (প্রজেক্ট) ড. ইঞ্জিনিয়ার এ.এস.এম সুমন। এতে জি.এম (এইচআর এন্ড এডমিন) সরোজ কান্তি চক্রবর্তী, ডি. জি.এম (এইচআর এন্ড এডমিন) এবিএম শহীদুল আলম আল-মাসুদ ও অন্যান্য উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও কর্মচারীগন উপস্থিত ছিলেন।

EVENTS & PUBLICATIONS

Powered by Alpha CMS & Hosted by alpha.net.bd