সুইডেন-বাংলাদেশ দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যিক সম্পর্ক অত্যন্ত প্রশংসনীয়: কুমিরায় জিপিএইচ ফ্যাক্টরী পরিদর্শনকালে সুইডেনের রাষ্ট্রদূত জুহান ফ্রিসেল

‘‘ইস্পাত নির্মানের কাঁচামাল রপ্তানি সহ সুইডেন-বাংলাদেশ দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যিক সম্পর্ক অত্যন্ত প্রশংসনীয়’’। ৯ জুলাই অপরাহ্নে জিপিএইচ ইস্পাতের কুমিরাস্থ ফ্যাক্টরী এলাকা পরিদর্শনকালে সুইডেনের রাষ্ট্রদূত জুহান ফ্রিসেল উপরোক্ত অভিমত ব্যক্ত করেন। তিনি উভয়দেশের রপ্তানিকারকদের সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করবেন বলে আশ্বাস দেন। রাষ্ট্রদূত জিপিএইচ কর্তৃক সম্প্রসারিত প্রকল্প সম্পর্কে অবহিত হয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন। তিনি আশা করেন নতুন প্লান্ট একটি পরিবেশবান্ধব প্রকল্প হবে। এ সময় রাষ্ট্রদূতের সাথে দূতাবাসের বাণিজ্যিক বিভাগের প্রধান মিস কাজসা আলডস্টডেট, কমার্শিয়াল অফিসার তাজনিন চৌধুরী, সুইডেনের স্টেনা মেটালের ফেরাস ডিপার্টমেন্ট প্রধান জেন্স বোর্কম্যন, জিপিএইচ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম, অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ আলমাস শিমুল উপস্থিত ছিলেন।


রাষ্ট্রদূতকে স্বাগত জানিয়ে জিপিএইচ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম ইস্পাত খাত বির্নিমানে সুইডেন সরকারের সহযোগিতা কামনা করেন। তিনি বলেন, আমাদের হ্যাভি মেটাল স্ক্র্যাপের যথেষ্ট চাহিদা রয়েছে। বর্তমানে সুইডেনের স্টেনা মেটালের কাছ থেকে আমরা আমদানি করে থাকি। তিনি এই সংস্থার সরবরাহকৃত কাঁচামালের গুণগতমান, যথা সময়ে শিপমেন্ট ইত্যাদির প্রশংসা করেন। তথ্য প্রকাশ করে বলা হয়, এ বছরের শুরুর দিকে আমরা প্রাইম মেটাল জিএমবিএইচ অস্ট্রিয়ার সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়েছি। এবং ধাপে ধাপে যাবতীয় সংশ্লিষ্ট প্রক্রিয়া সমূহ সম্পন্ন হয়েছে। বর্তমানে জিপিএইচ বার্ষিক ১,৭০০০০ টন ইস্পাত সামগ্রী তৈরি করছে। নতুন প্লান্ট স্থাপিত হলে তা ৬গুণ বেড়ে গিয়ে এক মিলিয়ন মেট্রিক টন এসে দাড়াবে। এর জন্য ১.৫ মিলিয়ন স্ক্র্যপ প্রয়োজন হবে। এক্ষেত্রে তিনি স্টেনা মেটালের দীর্ঘমেয়াদী সহযোগিতা কামনা করেন। স্টেনা মেটালের জেন্স বোর্কম্যন বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেন, রাষ্ট্রদূত তাদের দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যে সহযোগিতা করবার জন্য যে আশ্বাস দিয়েছেন তা অত্যন্ত আশাব্যঞ্জক।


রাষ্ট্রদূত সহ সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কর্মকর্তারা জিপিএইচ ম্যানেজমেন্ট সমবিভ্যহারে ফ্যাক্টরী এলাকা পরিদর্শন করেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালন করেন মিডিয়া এ্যাডভাইজার ওসমানগনি চৌধুরী, জিপিএইচ এর মিশন ও ভিশন সম্পর্কে পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন দেন ড. এএসএম সুমন, অন্যান্যদের মধ্যে নির্বাহী পরিচালক (গ্রুপ) এবি সিদ্দিক এফসিএ, সিনিয়র জিএম ও সিএফও কামরুল ইসলাম, জিএম (এইচআর এন্ড এ্যাডমিন) সরোজকান্তি চক্রবর্তী, ডিজিএম সাহেদুল আলম মাসুদ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের শুরুতে অতিথিদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানান সুবেহ সুবাহ ও সাফওয়ান সাজিদ রোহিম।


EVENTS & PUBLICATIONS

Powered by Alpha CMS & Hosted by alpha.net.bd